গলায় ফাঁস লাগানো লাশ উদ্ধার যমুনা টিভির সাংবাদিকের

রাজধানীর কলাবাগানের লেক সার্কাস এলাকার একটি বাসা থেকে কুদরত-ই-খুদা হৃদয় (২৪) নামে এক সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল যমুনা টেলিভিশনের অনলাইন বিভাগে কাজ করতেন।

আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে লেক সার্কাসের একটি ৮ তলা বাসার চিলেকোঠা থেকে হৃদয়ের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

কলাবাগান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মঞ্জুরুল ইসলাম জানান, আজ দুপুর ১২টার দিকে ৯৫ নম্বর লেক সার্কাসের আট তলার বাসার চিলেকোঠার একটি কক্ষ থেকে হৃদয়ের মরদেহ উদ্ধার করেন তারা। এ সময় হৃদয়ের সঙ্গে এক মেয়ে বন্ধু ছিলেন। হৃদয় গলায় ফাঁস দিয়েছেন বলেই তিনি পুলিশকে জানান।

এসআই আরও জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন হৃদয়। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। হৃদয়ের মেয়ে বন্ধু বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে আছেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মৃত হৃদয়ের ভগ্নিপতি টিএম আরিফুজ্জামান ইমন জানান, হৃদয়ের বাড়ি সিরাজগঞ্জ সদরের হোসেনপুর উত্তর ধানবান্দি গ্রামে। বাবার নাম আরিফ আহমেদ মিঠু। সকালে গ্রাম থেকে সংবাদ পেয়ে কলাবাগানের বাসায় গিয়ে হৃদয়কে মৃত অবস্থায় দেখতে পান তিনি।

তিনি আরও জানান, বাসায় গিয়ে পুলিশের কাছ থেকে জানতে পারেন হৃদয় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। বাসায় হৃদয়ের এক মেয়ে বন্ধুও ছিলেন।