সিআইপি হলেন রাঙ্গুনিয়া প্রবাসী কোরবান আলী

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার সন্তান প্রবাসী আলহাজ্ব মোহাম্মদ কোরবান আলীকে সিআইপি (বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি) নির্বাচিত করেছে সরকার। সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই প্রবাসী আলহাজ্ব মোহাম্মদ কোরবান আলী রাঙ্গুনিয়া পৌর এলাকার মরহুম আবুল কাশেমের প্রথম পুত্র।

বুধবার (২০ ডিসেম্বর) প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে ২০২০-২১ সালের জন্য তিন ক্যাটাগারিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে থাকা ৭৫ জন প্রবাসী বাংলাদেশিকে সিআইপি নির্বাচিত করে তালিকা প্রকাশ করা হয়।

বৈধ চ্যানেলে সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা পাঠানোর তালিকায় ৭৫ জনের মধ্যে ১১ নম্বরে রয়েছেন মোহাম্মদ কোরবান আলী।

কোরবান আলী বলেন, আমি দীর্ঘদিন প্রবাস জীবনে রাঙ্গুনিয়াবাসীর যে কোন আপদ-বিপদে পাশে ছিলাম। ইনশাল্লাহ, যতদিন বেচে থাকব রাঙ্গুনিয়াবাসীর খেদমত করে যাব।’

এছাড়া তিনি রাঙ্গুনিয়ার বিভিন্ন সমাজসেবামলূক কাজে নিয়োজিত রয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, ‘বাকী জীবন রাঙ্গুনিয়াবাসীর খেদমত করার জন্য সবার কাছে ধেয়া প্রার্থনা করেন। এছাড়াও এবার বাংলাদেশি পণ্যের আমদানিকারক ক্যাটাগরিতেও চট্টগ্রামের আরও অনেকে সিআইপি নির্বাচিত হয়েছেন।’

প্রজ্ঞাপনে শিল্পক্ষেত্রে বিনিয়োগ, বৈধ চ্যানেলে সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা পাঠানো, বেশি বাংলাদেশি পণ্যের আমদানিকারক এই তিন ক্যাটাগরিতে ৭৫ জন প্রবাসী বাংলাদেশিকে সিআইপি নির্বাচিত করা হয়। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে ২০২৩ সালের জন্য তিনটি আলাদা ক্যাটাগরিতে তালিকায় বাংলাদেশে বৈধ চ্যানেলে সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা প্রেরণকারী অনাবাসী বাংলাদেশি ক্যাটাগরিতে ৫৯ জন, বেশি বাংলাদেশি পণ্যের আমদানিকারক অনাবাসী বাংলাদেশি ক্যাটাগরিতে ১ জন এবং বাংলাদেশ শিল্পক্ষেত্রে সরাসরি বিনিয়োগকারী ক্যাটাগরিতে ১০ জন প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন।